‘মাশরাফি’র জেলার আরেক নক্ষত্রের ‘অভিষেক’: হাসছে নড়াইলবাসী

বাংলাদেশ ক্রিকেটদলের জীবন্ত কিংবদন্তি মাশরাফি বিন মর্তুজা’র জেলার আরেক উজ্জ্বল নক্ষত্র ‘অভিষেক দাস’। তবে বাবা-মা, পরিবার-পরিজন ও বন্ধুদের কাছে ‘অরণ্য’ নামে বেশি পরিচিত। সেই অরণ্য বা ক্রিকেট বিশ্বের ‘অভিষেক’ই ৩ ইউকেট ফেলে যুব বিশ্বকাপ বিজয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। 

তার বাড়ি নড়াইল শহরের চিত্রা নদীর পাড়ে বাঁধাঘাট চত্বরে। যে চিত্রা নদীতে সাঁতার কেটে, দুরন্তপনায় বেড়ে উঠেছেন ক্রিকেট বিশ্বের আরেক কিংবদন্তি নড়াইলের ‘কৌশিক’ তথা মাশরাফি বিন মর্তুজা। সেই চিত্রাপাড়ের ছেলে অভিষেক। যিনি যুব বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট শিকার করে দলের জন্য ব্যাপক অবদান রাখেন। তার এই অবদানের জন্য আনন্দিত অভিষেকের বাবা-মা, পরিবার-পরিজন ও বন্ধুবান্ধবসহ নড়াইলবাসী। অভিষেককে অভিনন্দন জানিয়েছে ফেসবুকেও ঝড় তুলছেন নড়াইলসহ দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

অরণ্য তথা অভিষেকের বাবা অসিত দাস ও মা করুনা দাস বলেন, আমরা ভীষণ খুশি হয়েছি। যা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। ও দলের জন্য ভবিষ্যতে আরো ভালো করবে-এই কামনা করি। অরণ্য (অভিষেক) আমাদের সোনার সন্তান মাশরাফির আদর্শে অনুপ্রাণিত। ও ক্রিকেটে বাংলাদেশের মুখ আরো উজ্জ্বল করবে বলে আমরা আশাবাদী।

অভিষেকের বাবা-মা আরো বলেন, রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলা শেষ পর্যন্ত দেখেছি আমরা। আমাদের বাড়ির পাশে বাঁধাঘাট চত্বরে বড় পর্দায় সবাই খেলা দেখেছেন। আমরাও তাদের সাথে এই খেলা উপভোগ করেছি। বাংলাদেশ জয়ী হওয়ায় আমরা ভীষণ আনন্দিত। অভিষেক এবার নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজে থেকে ‘ব্যবসায় শিক্ষা’ শাখায় উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। এসএসসিতে ‘এ’ পেয়েছিল।

এদিকে ভারতের বিপক্ষে যুব বিশ্বকাপ বিজয়ের পর থেকে প্রতিদিন অভিষেকদের বাড়িতে বিভিন্ন পেশার মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। জেলা শহরসহ গ্রামাঞ্চলে সর্বত্র চলছে ’অভিষেক বন্ধনা’। সবার মুখে একটিই কথা-ক্রিকেট বিশ্বের ‘জীবন্ত কিংবদন্তি মাশরাফি’র উত্তরসূরি ’আমাদের অভিষেক’।

অন্যদিকে সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) নড়াইল সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায়ও আলোচনায় ছিলেন ‘অভিষেক’। এ কর্মশালার প্রধান অতিথি বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ ক্রিকেটার অভিষেকের প্রশংসা করে বলেন, মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপির উত্তরসূরি অভিষেক যুব বিশ্বকাপে দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ  ভূমিকা পালন করায় আমি আনন্দিত। অভিষেকসহ সব খেলোয়াড়কে অভিনন্দন জানাই। মাশরাফির মতো সোনার ছেলেরা আরো এগিয়ে যাক এই প্রত্যাশা করি।

নড়াইল জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, ক্রিকেট তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপির শহরে অভিষেক উদীয়মান এক ক্রিকেটার। অভিষেক তার ধারাবাহিকতা রক্ষা করে দলের জন্য ভবিষ্যতে আরো ভালো করবে, এই কামনা করি।

এছাড়া বাংলাদেশ ওয়ান ডে ক্রিকেটদলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও যুব বিশ্বকাপের সাফল্যে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ফেসবুকে মাশরাফি লিখেছেন, ‘অভিনন্দন বাংলাদেশ। বিশেষ করে আমার শহরের ছেলে অভিষেক দাস। এছাড়া রাকিবুল, শরিফুল, ইমন এবং দলের সব খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ-সবাইকে অভিনন্দন। তুমি দুর্দান্ত আকবর আলি। শুধু আবেগটা ধরে রাখতে পারলেই হবে। কী অসাধারণ সাফল্য। বাংলাদেশের প্রতিটা মানুষের জন্য অনিন্দ্য সুন্দর মূহুর্ত।’

মাশরাফি আরো লিখেছেন, ‘আরও অনেক অনেক দূর যেতে হবে তোমাদের। ভবিষ্যতে আরও অনেক বেশি সাফল্য পাও- সেই শুভ কামনাই থাকলো। এখন সাফল্যটা উপভোগ করো। অভিনন্দন মি. ক্যাপ্টেন আকবর, অভিনন্দন বাংলাদেশ।’

প্রসঙ্গত, রোববার দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপ ক্রিকেটে ভারতকে ধরাশায়ী করে বিশ্বকাপ জয়ের ক্ষেত্রে নড়াইলের ছেলে অভিষেকের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। ৩ উইকেট শিকার করে অভিষেক ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিংলাইনে আঘাত হানেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *