ভারতে অভ্যন্তরীণ বিমান চালু

ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যে ফের চালু হয়েছে অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল । করোনাভাইরাস মহামারির কারণে টানা দুই মাস বন্ধ থাকার পর দিল্লি, মহারাষ্ট্রসহ ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যে  চলাচল শুরু হয়েছে অভ্যন্তরীণ বিমান । তবে পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা ও অন্ধ্র প্রদেশে এ পরিষেবা চালু হবে আরও কিছুদিন পর।

করোনার সংক্রমণ রোধে গত ২৫ মার্চ থেকে অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছিল ভারত। অনেকগুলো নতুন নিয়ম নিয়ে অবশেষে ২৫ মে থেকে ফের চালু হচ্ছে এসব ফ্লাইট।

রোববার ভারতের বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী হরদ্বীপ পুরী স্থানীয় বিমান সংস্থা ও রাজ্য প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন,  এরপরেই টুইটারে তিনি জানান, অনেক চেষ্টার পর বিমান চলাচল শুরু করতে রাজি হয়েছে রাজ্যগুলো। সোমবার থেকেই পালন হচ্ছে এ কার্যক্রম।

পশ্চিমবঙ্গে আগামী ২৮ মে থেকে বিমান চলাচল করবে কলকাতা ও বাগডোগরা থেকে। ত্রিপুরা জানিয়েছে, যেহেতু তাদের সব বিমানই কলকাতার সঙ্গে যুক্ত, তাই সেখানে না শুরু হওয়া পর্যন্ত তারা এটি চালু করতে পারছে না।

দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে ভিন্ন ভিন্ন কোয়ারেন্টাইন নীতির কারণে দেখা দিয়েছে জটিলতা। আসাম-উত্তর প্রদেশ জানিয়েছে, রাজ্যগুলোতে পৌঁছালেই যাত্রীদের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। পাঞ্জাব ও কর্ণাটকে বিভিন্ন মাত্রায় কোয়ারেন্টাইন চলছে। তবে দিল্লি জানিয়েছে, যারা উপসর্গবিহীন কাউকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠাবে না।

আক্রান্তের দিক থেকে শীর্ষ দশ দেশের তালিকায় এখন ভারত। আমেরিকা, ব্রাজিল, রাশিয়া, ব্রিটেন, স্পেন, ইটালি, ফ্রান্স, জার্মানি এবং তুরস্কের পরই এখন ভারত।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে সোমবার আনন্দবাজার জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ছয় হাজার ৯৭৭ জন। এই বৃদ্ধির জেরে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ৩৮ হাজার ৮৪৫ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা সব থেকে বেশি মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, গুজরাট ও দিল্লিতে। একই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ১৫৪ জনের। এই নিয়ে দেশে করোনারাঘাতে মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ২১ জনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *