বন্ধের পথে হিলি বন্দরে পাসপোর্টযাত্রী পারাপার

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় টুরিস্টভিসাসহ বিভিন্ন দেশের সকল ভিসা স্থগিতের পর পাসপোর্টযাত্রী পারাপার সাময়িক বন্ধের ঘোষনা দিলেও হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট দিয়ে দু’দেশের মাঝে যাত্রি পারাপার স্বাভাবিক রয়েছে। তবে বিকেল ৫টার পর থেকে এই পথ দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ হয়ে যাবে বলে হিলি ইমিগ্রেশনকে ভারতীয় ইমিগ্রেশন জানিয়েছে। পারাপার বন্ধের খবরে ভারত থেকে দেশে ফিরতে বা ভারতে যেতে অনেকে ইমিগ্রেশনে ভিড় করছেন।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট দিয়ে গড়ে প্রতিদিন ৫শ থেকে ৬’শ যাত্রি চিকিৎসা, ভ্রমণ,ব্যবসা, শিক্ষাসহ নানা কাজে ভারত-বাংলাদেশের মাঝে যাতায়াত করে থাকেন। সম্প্রতি ভারত সরকার টুরিষ্ট ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে। তবে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট দিয়ে শুক্রবার সকাল থেকে অন্যান্য দিনের মতো যাত্রী পারাপার চলছে। তবে বন্ধ হওয়ার খবরে অনেকেই কাজ সংক্ষিপ্ত করে নিজ নিজ দেশে ফিরছেন বলে জানান, ভারতীয় ও বাংলাদেশি পাসপোর্টযাত্রীরা।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্টের ওসি সেকেন্দার আলী জানান, হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার স্বাভাবিক রয়েছে। যাত্রী পারাপার বন্ধের কোন নির্দেশনা আসেনি তবে ভারতীয় ইমিগ্রেশন কতৃপক্ষ মৌখিকভাবে আমাদের জানিয়েছেন আজ শুক্রবার বিকেল ৫টার পর থেকে কোন যাত্রী পারাপার হবে না বলে জানিয়েছেন। তবে ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশি ও বাংলাদেশে আটকে পড়া ভারতীয় নাগরিকদের প্রবেশে অনুমতি দেবে।

হিলি স্থল শুল্ক স্টেশনের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন জানান, পাসপোর্ট যাত্রীদের নিকট থেকে প্রতিদিন দেড় থেকে দু’লাখ টাকা রাজস্ব আয় হয়, যাত্রী পারাপার বন্ধ হলে এই পরিমান রাজস্ব হারাবে সরকার। তবে আমদানি রফতানি বন্ধের কোন নির্দেশনা আসেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *