ফর্সা হওয়ার বিজ্ঞাপন দিলে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা!

ভারতে ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপন দিলেই এবার ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা গুণতে হতে পারে। 

দেশটির স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এই ধরনের জাদু-প্রতিকারজনিত ওষুধের বিজ্ঞাপনের (Ads for Fairness Products) বিরুদ্ধে (আপত্তিজনক বিজ্ঞাপন আইন, ১৯৫৪) একটি খসড়া সংশোধনীর প্রস্তাব করেছে।

ওই খসড়া প্রস্তাবে বলা হয়েছে, এই ধরনের বিজ্ঞাপন (Fairness Creams) দেখালে জন্য ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে। আসলে এখন যে কোনও প্রচার মাধ্যম খুললেই এরকম হরেক বিজ্ঞাপন নজরে আসে যেখানে বলা হয় কোনও কোনও ম্যাজিক ওষুধ যৌন কর্মক্ষমতা বাড়ায়, কোনও ওষুধ আবার ফর্সা করে, মহিলাদের মধ্যে বন্ধ্যাত্ব দূর করে, অকাল বার্ধক্য আটকায়, বা মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

সরকারি মতে, এই ধরনের ওষুধের কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। অথচ ওই সব আকর্ষণীয় বিজ্ঞাপন দেখে প্রভাবিত হন সাধারণ মানুষ, টাকা পয়সা খরচ করে কিনে ফেলেন সেই সব ওষুধ বা ক্রিম (Fairness Creams)।

কেন্দ্রীয় সরকার এবার এই ধরনের বিজ্ঞাপন বন্ধে খসড়া বিল আনলো, ওই বিলে বলা হয়েছে, ৭৮ টি তালিকাভুক্ত রোগ-ব্যাধি নিরাময়ে জাদুর মতো কাজ হবে এই ধরনের বিজ্ঞাপন আর নয়।

বর্তমান আইন অনুসারে, এই ধরণের বিজ্ঞাপণ দিলে জরিমানাসহ ৬ মাসের জেল অথবা যে কোনও একটি শাস্তি হবে এবং দ্বিতীয়বার একই বিজ্ঞাপন দিলে এক বছরের পর্যন্ত কারাদণ্ডের বিধান দেওয়া আছে ৷ কিন্তু এই লঘু শাস্তির কারণে আখেরে লাভ হচ্ছে না কিছুই, ক্রমশই বাড়ছে এই ধরনের বিজ্ঞাপন। এবার তাই এই শাস্তিই আরও কড়া করতে চায় সরকার।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণঅলয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, সময় ও প্রযুক্তির পরিবর্তনকে মাথায় রেখে এই আইন সংশোধনের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে ৷ এছাড়া সংশোধনী প্রস্তাবে বিজ্ঞাপনের সংজ্ঞার পরিধিও বাড়ানো হয়েছে ৷

নতুন বিলে বলা হয়েছে, যৌন উত্তেজনা বর্ধক কোনও ওষুধের বিজ্ঞাপন, ফর্সা হওয়ার ক্রিম, হেয়ার কালার, বন্ধ্যাত্ব দূর করা ওষুধ, এইডস ও আনুষঙ্গিক রোগের ওষুধের বিজ্ঞাপন বন্ধ করতে হবে। কোনও তারকা এই বিজ্ঞাপন করলে অথবা সেই পণ্য বা পরিষেবায় কোনও গলদ দেখা গেলে, কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া হবে। প্রথমবার অপরাধ করলে ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা দুই বছরের জেল বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারে। দ্বিতীয়বার অপরাধ করলে এই পরিমাণ বেড়ে হবে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা ও পাঁচ বছরের জেল।

সূত্র: এনডিটিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *