নতুন রেফ্রিজারেটর আনলো ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস

অংশীদার (পার্টনার) সম্মেলনে দেশের বাজারের জন্য হিটাচি ব্র্যান্ডের নতুন রেফ্রিজারেটর নিয়ে এসেছে ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস। আজ রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটির (আইসিসিবি) ১ নম্বর হলে ‘হিটাচি স্টার নাইট ২০২০’ অনুষ্ঠানে নতুন মডেলের রেফ্রিজারেটগুলো উন্মোচন করা হয়।

ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস নিয়ে এসেছে হিটাচি আর-এম৮২০ভিএজি৯পিবিএক্স মডেলের সাইড বাই সাইড রেফ্রিজারেটর। এ রেফ্রিজারেটরে রয়েছে ভ্যাকুয়াম কম্পার্টমেন্ট, অত্যাধুনিক নকশা, শক্তিশালী ডিওডোরাইজেশন, বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্টার প্রযুক্তি এবং ইকো মনিটরিং সেন্সর। বাজারে হিটাচি সাইড বাই সাইড রেফ্রিজারেটর পাওয়া যাবে ৪ লাখ ৬৫ হাজার টাকায়।

হিটাচি আর-ডব্লিউবি৬৪০ভিওপিবি ৪ডি ফ্রেঞ্চ বটম ফ্রিজারে খাবার সতেজভাবে সংরক্ষণের জন্য রয়েছে ভ্যাকুয়াম কম্পার্টমেন্ট ফিচার, স্বয়ংক্রিয় দরজা, তিনগুণ শক্তিশালী ফিল্টারসহ শক্তিশালী ডিওডোরাইজেশন ও নান্দনিক নকশাসহ বাহ্যিক হাতলওয়ালা এলইডি। ফ্রিজারটি গ্লাস ব্রাউক (জিবিকে) ও নিউ গ্লাসস ব্রাউন এ দু’টি রঙে বাজারে পাওয়া যাবে। এর বাজারমূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২ লাখ ১০ হাজার টাকা।

এছাড়াও, এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে হিটাচির ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়। ২০১৮ সাল পর্যন্ত, বাংলাদেশে হিটাচির ৪০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ছিলো যা ২০১৯ সালে বেড়ে গিয়ে দাঁড়ায় ৫৬ শতাংশে। প্রতিষ্ঠানটির পরিকল্পনা রয়েছে বাজার বিস্তৃতি বাড়ানোর মাধ্যমে প্রবৃদ্ধি ১০০ শতাংশে নিয়ে যাওয়ার।

এ নিয়ে হিটাচি হোম ইলেকট্রনিকস এশিয়া সিঙ্গাপুর প্রাইভেট লিমিটেডের বিজনেস প্ল্যানিং- এর জেনারেল ম্যানেজার হিরোশি হোন্ডা বলেন, ‘২০২০ সালে বাংলাদেশের বাজারে ব্যবসার প্রবৃদ্ধি বাড়াতে আমরা আরও বেশি পরিমাণে বিনিয়োগ করতে চাই। নতুন মডেলের রেফ্রিজারেটর উন্মোচনের পাশাপাশি গ্রাহকদের চাহিদার কথা বিবেচনা করে আমরা দেশের বাজারে আরও বিস্তৃত ধরনের পণ্য নিয়ে আসতে চাই। ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস আমাদের অফিসিয়াল পার্টনার হওয়ায় দেশব্যাপী শক্তিশালী গ্রাহক নেটওয়ার্ক তৈরি করা আমাদের জন্য আরও সহজ হয়েছে। এ বছর আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে, স্থানীয় চাহিদা পূরণে ব্যতিক্রমী হোম অ্যাপ্লায়েন্স নিয়ে আসা।’

এছাড়াও, দেশের বাজারে  হিটাচি ব্র্যান্ডের পণ্যের সহজলভ্যতা বাড়াতে ট্রান্সকম ইলেক্ট্রনিকস এর খুচরা ও ডিলার নেটওয়ার্ক বাড়াবে। এ নিয়ে ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকসের ডিরেক্টর অপারেশন ইয়ামিন শরীফ চৌধুরী বলেন, ‘ইলেকট্রনিকস পণ্যের ব্যবসার ক্ষেত্রে নতুন বাজার সৃষ্টি এবং  ডিলার পয়েন্টে ৫৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধিতে পৌঁছানোর মাধ্যমে আমরা আমাদের ব্যবসার স¤প্রসারণ করছি। প্রতিযোগিতামূলক মূল্য, শক্তিশালী অংশীদার ব্যবস্থাপনা (ডিলার), ক্রেতাদের জন্য আকর্ষণীয় প্রমোশনাল অফার, কম সময়ে গুণগত মানের সেবা প্রদান ও ইলেকট্রনিকস ব্যবসার নতুন বাজার খুঁজে পাওয়ার মাধ্যমে  হিটাচির সাথে আমরা আমাদের প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করবো।’

এর পাশাপাশি, বাংলাদেশের ক্রেতাদের জীবনমান উন্নয়নে ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস দিচ্ছে অরিজিনাল ব্র্যান্ডের উচ্চ মানসম্পন্ন সেবা। ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস সার্ভিস বিজনেস ইউনিটের রয়েছে দেশজুড়ে সার্ভিস নেটওয়ার্ক ও কলসেন্টার। যার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি নিশ্চিত করছে ক্রেতাদের জন্য ইনস্টলেশন ও বিক্রয়োত্তর সেবা। এছাড়াও, ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস হিটাচি সহ বাংলাদেশে অন্যান্য ইলেকট্রনিক ব্র্যান্ডের সার্ভিস পার্টনার। যা প্রতিষ্ঠানটিকে দেশের বিশ্বস্ত ও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ইলেকট্রনিকস মাল্টি-ব্র্যান্ড রিটেইলারে পরিণত হতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

অনুষ্ঠানে হিটাচির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হিটাচি হোম ইলেকট্রনিকস এশিয়া সিঙ্গাপুর প্রাইভেট লিমিটেডের বিজনেস প্ল্যানিং- এর জেনারেল ম্যানেজার হিরোশি হোন্ডা এবং প্রতিষ্ঠানটির ওয়েস্ট রিজিওন ও ইন্ডিয়া বিজনেসের হেড জেনারেল ম্যানেজার তরুণ জৈন, জেনারেল ম্যানেজার, হেড, ওয়েস্ট রিজিওন ও ইন্ডিয়া বিজনেস। অনুষ্ঠানে ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকসের থেকে   উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী আরশাদ হক এবং  ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকসের ডিরেক্টর অপারেশন ইয়ামিন শরীফ চৌধুরী সহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *