কয়েকজন আরব নেতার বিশ্বাসঘাতকতায় কোনো লাভ হবে না: ইরান

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনি বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আগেই কথিত ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরি’র মৃত্যু ঘটবে। বুধবার বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার হাজার হাজার মানুষের এক সমাবেশে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, কয়েকজন আরব নেতার বিশ্বাসঘাতকতায় কোনো লাভ হবে না তাদের।

ইরানের সর্বোচ্চ এ নেতা বলেন, ‘এই পরিকল্পনা মোকাবেলার পথ হচ্ছে ফিলিস্তিনি জাতি ও সংগঠনগুলোর সাহসিকতাপূর্ণ প্রতিরোধ এবং মুসলিম বিশ্বের সমর্থন।’

মার্কিন গুণ্ডা ও দস্যুদের মাধ্যমে কথিত ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরি’ প্রকাশের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘মার্কিনীরা ফিলিস্তিন-বিরোধী এই পরিকল্পনার একটি বড় নাম দিয়ে এখন এটা ভাবছে যে তাদের পরিকল্পনা সফল হবে। কিন্তু বাস্তবে তারা বোকামিপূর্ণ ও শয়তানি কাজ করেছে এবং ঘটনার শুরুতেই তারা ক্ষতির শিকার হয়েছে। মার্কিন সরকার ইহুদিদের সঙ্গে এমন কিছু নিয়ে লেনদেন করছে যা তাদের নিজেদের নয়।’
আয়াতুল্লাহ খামেনি বলেন, ‘নিজ জাতির কাছেও অপমানিত ও মূল্যহীন কয়েকজন বিশ্বাসঘাতক আরব নেতার হাততালিতে কোনো লাভ নেই। সাম্রাজ্যবাদী শক্তি সব সময় ফিলিস্তিন ইস্যুকে মানুষের মন থেকে মুছে দেওয়ার চেষ্টা করছে, তবে তাদের এই কাজের ফলে উল্টো ফিলিস্তিন ইস্যুটি আবারও জীবন্ত হয়ে উঠেছে, বিশ্বের সর্বত্র ফিলিস্তিনিদের নাম ও অসহায়ত্ব এখন সবার মুখে মুখে শোনা যাচ্ছে।’

আয়াতুল্লাহ খামেনি আরও বলেন, ‘সাম্রাজ্যবাদীরা অস্ত্র ও অর্থের ওপর নির্ভর করে তাদের পরিকল্পনা এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু আমার বিশ্বাস ফিলিস্তিনের সশস্ত্র সংগঠনগুলো এর মোকাবেলা করবে এবং প্রতিরোধ সংগ্রাম অব্যাহত রাখবে। ইরান এসব সংগঠনের প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতাকে নিজের দায়িত্ব বলে মনে করে। এ কারণে সম্ভাব্য সব উপায়ে তাদেরকে সহযোগিতা করা হবে এবং এটা ইরানের সরকার ব্যবস্থা ও জনগণেরই দাবি।’

ইরানের সর্বোচ্চ এ ধর্মীয় নেতা বলেন, ‘ফিলিস্তিন সংকটের সমাধান ও সেখানে শান্তি প্রতিষ্ঠার একমাত্র উপায় হলো মুসলমান, খ্রিস্টান ও ইহুদিসহ সব ফিলিস্তিনির অংশগ্রহণে গণভোট আয়োজন করা এবং তাদের রায়ের ভিত্তিতেই সরকার ও রাষ্ট্র ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *