আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড পেল দেশবন্ধু গ্রুপ

বাংলাদেশের শিল্পখাতে দ্রুত বর্ধনশীল ব্র্যান্ড হিসেবে দেশবন্ধু গ্রুপকে স্বীকৃতি দিয়েছে সিঙ্গাপুর ভিত্তিক ম্যাগাজিন ‘এশিয়া ওয়ান’। গত শুক্রবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে ম্যারিওট মারকুইস হোটেলে ১৩তম এশিয়ান বিজনেস অ্যান্ড সোশ্যাল ফোরাম শিরোনামে এশিয়া ওয়ান আয়োজিত এবারের আসরে দেশবন্ধু গ্রুপকে এই স্বীকৃতি দেওয়া হয়। 

এবারের আসরে ১৩০ টি বিভিন্ন ক্যাটাগরির মধ্যে ‘শিল্পে দ্রুত বর্ধনশীল ব্র্যান্ড’ ক্যাটাগরিতে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য দেশবন্ধু গ্রুপকে এই পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। স্বীকৃতির অংশ হিসেবে একটি পদক তুলে দেওয়া হয় দেশবন্ধু গ্রুপের উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) সারোয়ার জাহান তালুকদারের হাতে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এশিয়া ওয়ানের কর্ণধার রাজাত শুকাল, ইন্ডিয়া-থাই চেম্বার অব কমার্সের প্রেসিডেন্ট রবি সিগ্যাল, থাইল্যান্ডে নিযুক্ত তিমুরলেসের অ্যাম্ব্যাসেডর, মরক্কোর শিক্ষামন্ত্রী মেরইয়ামসহ বিভিন্ন দেশের ১১ জন হাই কমিশনার ও ডেপুটি কমিশনারসহ অন্যান্য অতিথি।

পুরস্কার অর্জনের অভিব্যক্তিতে দেশবন্ধু গ্রুপের উপদেষ্টা সারোয়ার জাহান তালুকদার বলেন, আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম থেকে যে কোনো পুরস্কার ও সম্মাননা পাওয়া সত্যিই আনন্দের। এ সম্মাননা দেশের শিল্পখাত এবং ভোক্তাদের প্রতি দেশবন্ধু গ্রুপের দায়বদ্ধতা ও প্রতিশ্রুতি আরও বাড়িয়ে দিলো।

এবারের আসরে দেশবন্ধু গ্রুপ ছাড়াও বাংলাদেশের একাধিক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বেক্সিমকো গ্রুপ, এইচআরএস গ্রুপ, আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ, মিডমাই হোপ, বিপ্রপার্টি লিমিটেড, মাল্টিমোড গ্রুপ, উত্তরা ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক , দি প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড।

উল্লেখ্য, প্রতিবছর ‘এশিয়া ওয়ান’ ম্যাগাজিন আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে সফল ব্যক্তিত্বদের, যারা নিজস্ব পদচারণায় উন্নয়নমূলক খাতে অবদান রাখেন তাদের সম্মাননা দিয়ে যাচ্ছে।

আয়োজক কর্তৃপক্ষ বলছেন, যেসব ব্যক্তি  ও প্রতিষ্ঠান তাদের কর্ম দিয়ে অন্যদের জন্য অনুকরণীয় এবং পরবর্তী প্রজন্মের জন্য আদর্শ স্থাপন করেছেন- তাদের প্রতিবছর এ পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করা হয়। সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, এ সম্মেলন এশিয়ার আইকনিক, পাওয়ারফুল ও দ্রুত অগ্রসরমান ব্র্যান্ড ও ব্যবসায়ী এবং উদ্যোক্তাদের জন্য এক অভিন্ন প্ল্যাটফর্ম। এখানে তারা নিজেদের কৌশলগত অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *