অসাম্প্রদায়িক চেতনার যোদ্ধাকে হারালাম

অসাম্প্রদায়িক চেতনার যোদ্ধাকে হারালাম: প্রধানমন্ত্রী
অসাম্প্রদায়িক চেতনার যোদ্ধাকে হারালাম: প্রধানমন্ত্রী

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ শোকবার্তা।

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক কামাল লোহানীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। রাষ্ট্রপতি শোকবার্তায় কামাল লোহানীর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

শনিবার (২০ জানুয়ারি) শোক বার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘সাংবাদিকতার পাশাপাশি ভাষা আন্দোলন, মুক্তিসংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধে কামাল লোহানী বিপুল অবদান রেখেছেন। সাংস্কৃতিক আন্দোলনসহ বাঙালি সংস্কৃতি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিকাশে তিনি ছিলেন একজন পুরোধা ব্যক্তি। তার মৃত্যুতে দেশ একজন বরেণ্য সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বকে হারালো। তার মৃত্যু দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে এক অপূরণীয় ক্ষতি।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোকবার্তা

একুশে পদকপ্রাপ্ত বিশিষ্ট সাংবাদিক, বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল লোহানীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, কামাল লোহানী বাঙালির ভাষা আন্দোলন, স্বাধিকার ও স্বাধীনতা সংগ্রামে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন। একজন আদর্শবান ও গুণী মানুষ হিসেবে মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনা প্রতিষ্ঠা এবং দেশের সংস্কৃতি বিকাশের আন্দোলনে পুরোধা ব্যক্তিত্ব ছিলেন তিনি।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, আমরা একজন প্রগতিশীল ব্যক্তিত্ব এবং অসাম্প্রদায়িক চেতনার অসাধারণ যোদ্ধাকে হারালাম।

প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

ডিএসসিসির গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ 

একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষাসৈনিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম সংগঠক, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব আবু নাইম মোহা. মোস্তফা কামাল খান (কামাল লোহানী) এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

আজ এক শোকবার্তায় ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস মরহুমের বিদেহ আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন।

শোকবার্তায় মেয়র তাপস বলেন, উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটি ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের মতো সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক আন্দোলনের মাধ্যমে তিনি সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও কুসংস্কারের বিরুদ্ধে সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে সবসময় সরব থেকে দেশ ও জাতিকে আলোর পথের সন্ধান দিতে তিনি আমৃত্যু নিবেদিত ছিলেন। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে তাঁর সরব পদচারণা ও কর্মযজ্ঞ এদেশের প্রতিটি মানুষকে প্রেরণা যোগাবে। তাঁর এ মৃত্যু বাংলাদেশের রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে এক অপূরণীয় ক্ষতি।

স্পিকার এবং ডেপুটি স্পিকার ও চিফ হুইপ গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ

একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষা সৈনিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রবীণ সাংবাদিক কামাল লোহানীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং ডেপুটি স্পিকার মোঃ ফজলে রাব্বী মিয়া।

আজ এক শোক বার্তায় কামাল লোহানীর রুহের মাগফেরাত কামনা এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবার-পরিজন ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান সংসদের স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার।

এছাড়া, কামাল লোহানীর মৃত্যুতে সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

মন্ত্রী এবং প্রতিমন্ত্রীর গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ।

একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষা সৈনিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রবীণ সাংবাদিক ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন মন্ত্রী এবং প্রতিমন্ত্রীরা।

আজ পৃথক শোকবার্তায় কামাল লোহানীর রুহের মাগফিরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান তারা।

শোকবার্তায় মন্ত্রী এবং প্রতিমন্ত্রীরা বলেন, ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধসহ এদেশের প্রায় প্রতিটি প্রগতিশীল আন্দোলনে কামাল লোহানী সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছিলেন। এই গুণী ব্যক্তিত্বের মৃত্যু দেশ ও জাতির জন্য অপূরণীয় ক্ষতি।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিক কামাল লোহানী মারা গেছেন। রাজধানীর মহাখালীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (২০ জুন) সকালে ১০টায় তার মৃত্যু হয়।

দীর্ঘদিন থেকে বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায় ভুগছেন কামাল লোহানী। গত মাসেও অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। শুক্রবার (১৯ জুন) জানা যায়, তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। ভাইরাসের সংক্রমণ ও বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার কারণে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *